কোনো প্রযোজকের সাহায্যে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করিনি: সোনাক্ষী

প্রথম সিনেমা দিয়েই তারকা ইমেজ তৈরি করে ফেলেন সোনাক্ষী সিনহা। তবে এর কারণও রয়েছে। সালমান খানের বিপরীতে অভিনয় মানেই নায়িকা হিট। এখন পর্যন্ত তার হাত ধরে বলিউডে অনেক নায়িকা এসেছেন। যারা এখন ইন্ডাস্ট্রিতে শীর্ষ তারকা। সোনাক্ষী তাদের মধ্যে অন্যতম।

কথা বেশি না বলে তিনি কাজে দেখিয়েছেন তার প্রতিভা এবং নেটিজেনদের মুখ চিরকালের জন্য বন্ধ করেছেন। সম্প্রতি সোনাক্ষীর মাথায় উঠল নতুন পালক। গত এক দশকে তিনি একমাত্র ভারতীয় নারী, যিনি ১৫০০ কোটি টাকার ক্লাবে প্রবেশ করেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর নিজেই জানালেন এ অভিনেত্রী। তিনি বলেন, ‘দলবাজির কোনো দরকার হয় না। পুরস্কারও আমার কাছে খুব একটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। সর্বশেষ কঠোর পরিশ্রমের জয় হলো। কাজই শেষকথা বলে।’ দেখতে দেখতে এই ইন্ডাস্ট্রিতে ১০ বছর কাটিয়ে দিলেন সোনাক্ষী সিনহা। ২০টিরও বেশি ছবিতে দেখা গেছে ‘দাবাং গার্ল’কে।

সোনাক্ষী বলেন, ‘আমি খুব লাকি যে বিভিন্ন ধরনের চরিত্রে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি এবং এই সুযোগ আমার কাছে হেঁটে এসেছে। কোনো প্রযোজকের সাহায্যে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করিনি। নিজের যোগ্যতায় কাজ পেয়েছি এবং সেই সুযোগ আমার কাছে এসেছিল। নিজেকে খুব ভাগ্যবতী মনে করি, এই ১০ বছরে বিভিন্ন ধরনের চরিত্রে এবং ভালো ছবিতে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। ধন্যবাদ জানাতে চাই সেই পরিচালকদের, যারা আমার ওপর ভরসা রেখেছেন এবং সুযোগ দিয়েছেন। আমার কঠোর পরিশ্রমই ফল এনে দিয়েছে। আমি সবসময় একটা আদর্শের মধ্যে চলি এবং নীতি অনুসরণ করি, যা আমাকে মনে করিয়ে দেয় আমার কী করা উচিত, আর কী করা উচিত নয়।’

সালমানের প্রসঙ্গে সোনাক্ষী বলেন, ‘সালমানের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। কারণ একজন সহকর্মী বা সিনিয়র হিসেবে নয়, একজন বন্ধু হিসেবে তিনি আমাকে যে সাপোর্ট দিয়েছেন তার ভোলার নয়।’