বাংলাদেশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ

করোনাকালে বাংলাদেশের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলের নোয়াখালী জেলায় বিবস্ত্র করে নারী নির্যাতন এবং দেশব্যাপী ধর্ষণ, গন ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বৃদ্ধির প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সোমবার বিক্ষোভ-সমাবেশ হয়েছে।

সাধারন মানুষ, শিক্ষার্থী এবং বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন, রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সংগঠনের নেতা কর্মীরা এ সকল বিক্ষোভে অংশ নেন। তারা ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বন্ধে সরকারের ব্যর্থতার সমালোচনা করে বলেন দেশে সুশাসনের অভাব এবং করোনাকালে প্রশাসনিক শিথিলতার সুযোগে দুর্বৃত্তরা এ সকল ঘটনা ঘটাচ্ছ। এ সকল বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানান।

নোয়াখালীর ওই পৈশাচিক ঘটনার সাথে জড়িত থাকার দায়ে পুলিশ এ পর্যন্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে। বাংলাদেশ হাই কোর্ট দুর্বৃত্তরা ঘটনাটির যে ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়েছিল তা তুলে নিতে কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে। ভিডিও প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ঘটনার ব্যাপক সমালোচনা হয়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আজ গণমাধ্যমকে বলেছেন এ সকল ঘটনার দায় সরকার এড়াতে পারেনা। তিনি দলমত নির্বিশেষে সকলকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে ধর্ষণের মত ব্যাধিকে নির্মূল করার আহ্বান জানান।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20
error

Enjoy this blog? Please spread the word :)