করোনা মহামারিতে আয়-রোজগার নেই, প্রতিদিন চাকরি হারাচ্ছে মানুষ

করোনা মহামারিতে আয়-রোজগার নেই, মানুষ চাকরি হারাচ্ছে প্রতিদিন। এরমধ্যে বাল্যবিবাহের ধুম পড়েছে। মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন টেলিফোনে এক জরিপ চালিয়ে বাল্যবিবাহের ভয়াবহ তথ্য পেয়েছে। করোনাকালে ৪৬২টি বাল্যবিবাহের ঘটনা ঘটেছে। ২০৬টি বিয়ের আয়োজন ভুন্ডুল করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। কোথাও কোথাও বাধার সম্মুখীন হয়েছে পুলিশ প্রশাসন। বর্তমানে গড়ে প্রতিবছর ৪৭ ভাগ বাল্যবিবাহ হয়ে থাকে। মে থেকে জুন মাসে পরিচালিত জরিপে দেখা যায়, বাল্যবিবাহ বেড়েছে ২৬২ গুণ। অনেক ঘটনা রেকর্ড হয়নি মহামারির কারণে। সাধারণভাবে বলা হচ্ছে, সুযোগ পেয়েছি, বিয়ে দিয়েছি। কে জানে এই সুযোগ ফিরে পাব কিনা! আর্থিক সংকটের কথাও কেউ কেউ বলছেন। প্রতিবছর বিশ্বে ১২ মিলিয়ন বাল্যবিবাহ হয়ে থাকে। করোনাকালে এটা ১৩ মিলিয়নে পৌঁছাবে বলে জাতিসংঘের এক রিপোর্টে আশঙ্কা ব্যক্ত করা হয়েছে।

ওদিকে করোনা মানুষের আয় ও ব্যায়ের ওপর কী প্রভাব ফেলেছে তার দিকে নজর দিয়েছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো । এক রিপোর্টে প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, করোনার প্রভাবে দেশে জীবিকা নির্ভর মানুষের মাসিক আয় ২০ দশমিক ২৪ শতাংশ কমেছে। একইসঙ্গে ব্যায়ও কমেছে ৬ দশমিক ১০ শতাংশ। জরিপে দেখা যায়, মার্চে যেখানে মাসিক আয় ছিল ১৯ হাজার ৪২৫ টাকা সেখানে আগস্টে তা দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৮৯২ টাকায়।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন আরও ৩০ জন। এ নিয়ে মারা গেছেন ৫ হাজার ৪০৫ জন। শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৪৯৯ জন। উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশে এই মুহূর্তে টেস্ট কম। যে কারণে মৃত্যুর গ্রাফ ওঠানামা করছে। হাসপাতালগুলোর অর্ধেক বেড শূন্য। রোগীরা হাসপাতালে নয়, বাড়িতে বসে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20
error

Enjoy this blog? Please spread the word :)