ইসলামের টানে অভিনয় ছাড়লেন বলিউড অভিনেত্রী

ইসলাম ধর্মকে পুরোপুরিভাবে অনুসরণ করতে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় বলিউড ছেড়েছিলেন ‘দঙ্গল’ খ্যাত কাশ্মীরি অভিনেত্রী জায়রা ওয়াসিম। এবার অনেকটা তারই অনুসরণ করলেন আরেক বলিউড অভিনেত্রী সানা খান।

ইসলামের টানে তিনিও বলিউডকে চিরদিনের মতো বিদায় জানিয়েছেন বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা দিয়েছেন।

সানা খান ‘ওয়াজাহ তুম হো’, ‘জয় হো’সহ একাধিক বলিউড সিনেমায় অভিনয় করে সিনেপ্রেমীদের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন। অনেক আঞ্চলিক সিনেমায় অভিনয় করেছেন সানা।

টেলিভিশনে বেশ কিছু রিয়ালিটি শোতে অংশ নিয়েছেন। বিগ বস ৬-এ জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছেছিলেন এই অভিনেত্রী।

কিন্তু এখন থেকে আর রূপালি পর্দাসহ এসব রিয়েলিটি শোতে দেখা যাবে না সানাকে।

এসব বাদ দিয়ে এখন থেকে শুধু ধর্ম ও মানবসেবায় মন দেবেন তিনি।

এ নিয়ে নিজের ইনস্টাগ্রামে বিশদ পোস্ট দিয়েছেন সানা খান।

তিনি লিখেছেন, জীবনের এক গুরুত্বপূর্ণ সময়ে এসে আমি আপনাদের সঙ্গে কথা বলছি। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে আমি বহু বছর কাটালাম। এই সময়ে আমি আল্লাহর দয়ায় বহু খ্যাতি, অর্থ ও ভক্তদের থেকে ভালোবাসা পেয়েছি। যার জন্য আমি চিরকৃতজ্ঞ থাকব। কিন্তু কিছুদিন ধরেই একটা জিনিস ভাবছি, পৃথিবীতে মানুষের আসা কি অর্থ ও খ্যাতির পেছনে দৌড়ানোর জন্য? দরিদ্র ও অসহায়দের জন্য কাজ করা কি কর্তব্য নয়? একজনের কি ভাবা উচিত নয় যে তিনি যে কোনো মুহূর্তে মারা যেতে পারেন? এই প্রশ্নের উত্তর আমার মধ্যে ঘুরপাক খায় সব সময়। আমি জানতে চাই, মৃত্যুর পরে আমার কী হবে? এসব প্রশ্নই এখন সানার।

সানা বলেন, আমার ধর্মের মধ্যে এর উত্তর খুঁজতে গিয়ে দেখি, পৃথিবীতে জন্মের পর মৃত্যু-পরবর্তী জীবনের উন্নতির জন্য কাজ করা দরকার। আল্লাহর নির্দেশমতো যদি একজন বান্দা তার জীবনযাপন করেন তাহলেই ভালো। সব সময় অর্থ ও খ্যাতির পেছনে ছুটলেই সেটা সম্ভব নয়। বরং পাপের রাস্তা ছেড়ে আল্লাহর দেখানো পথেই হাঁটা উচিত।

এরপর সানা লেখেন, আজ ঘোষণা করছি, আজ থেকে বিনোদন জগট থেকে চিরকালের মতো বিদায় নিলাম। আজ থেকে মানবিকতার জন্য কাজ করব এবং আল্লাহর নির্দেশ মেনে চলব। প্রত্যেক ভাই-বোনকে আল্লাহর কাছে আমার জন্য প্রার্থনা করতে বলছি, যাতে আমায় এই কাজে তিনি অনুমতি দেন এবং গ্রহণ করেন। আমার সব ভাই-বোনকে অনুরোধ করব, তারা যেন আমার সঙ্গে বিনোদন জগট নিয়ে আর কোনো আলোচনা না করেন। ধন্যবাদ।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20
error

Enjoy this blog? Please spread the word :)