যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে ব্যয়বহুল নির্বাচন

এবারের মার্কিন নির্বাচনকে বলা হচ্ছে দেশটির ইতিহাসের সব থেকে ব্যয়বহুল নির্বাচন। গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর রেসপন্স পলিটিক্সের হিসাবে, এরইমধ্যে ২০১৬ সালের নির্বাচনের তুলনায় এবারের নির্বাচনে দুই গুণ বেশি খরচ হয়েছে। এ ব্যয় বেড়ে শেষ পর্যন্ত ১৪ বিলিয়ন ডলার বা ১ লাখ ২০ হাজার কোটি টাকায় পৌঁছাতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।
গবেষণা অনুযায়ী, ডেমোক্রেট প্রার্থী এবং সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন-ই ইতিহাসের সেই প্রথম ব্যক্তি হতে যাচ্ছেন যিনি দাতাদের কাছ থেকে ১ বিলিয়ন ডলার (৮,৫০০ কোটি টাকা) তহবিল সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়েছেন। সেজন্য ইতিমধ্যেই ৯৩৮ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহ করা বাইডেনের আর মাত্র ১৬২ মিলিয়ন ডলার প্রয়োজন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সংগ্রহও ইতিমধ্যে ৫৯৬ মিলিয়ন। দশ বছর আগে যেখানে বিলিয়ন ডলারের প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর কথা স্বপ্নেও ভাবা যেতো না, এখন সেখানে এক নির্বাচনেই দুজনকে পাবার সম্ভাবনা উঁকি দিচ্ছে! করোনা মহামারিকালেও সাধারণ ব্যক্তিদের থেকে শুরু করে বড় দাতারা সবাই দেদারছে টাকা ঢালছেন। যা কল্পনাতীত।
ধারণা করা হচ্ছে, এবারের নির্বাচনী ব্যয় গত দুইবারের মোট নির্বাচনী ব্যয়কেও ছাড়িয়ে যাবে।

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20
error

Enjoy this blog? Please spread the word :)